টিভি স্বত্ত্ব নিয়ে ফিফার তদন্ত শুরু

প্যারিস সেন্ট জার্মেইর মালিক নাসের আল-খিলাইফি ও ফিফার সাবেক কর্মকর্তা জেহম ভাল্কের গোমর ফাঁস করতে তদন্ত শুরু হল সুইজারল্যান্ডে।

ভাল্কে ছিলেন ফিফার সাবেক প্রেসিডেন্ট সেপ ব্লাটারের কাছের লোক। তাদের বিরুদ্ধে মোটা অঙ্কের অর্থের বিনিময়ে বিভিন্ন টিভি সংস্থাকে আগামী ফুটবল বিশ্বকাপের সম্প্রচার স্বত্ত্ব পাইয়ে দেয়ার অভিযোগ এসেছে ফিফার কাছে।

সুইস অ্যাটর্নি জেনারেলের (ওএজি) দফতর জানিয়েছে, এই তদন্ত শুরু হয়েছে গত মার্চ মাসে। তাদের বিরুদ্ধে ঘুষ, প্রতারণা, জালিয়াতি-সহ একাধিক অপরাধের অভিযোগ জমা পড়েছে।

আল-খিলাইফি কাতারে ‘বিইন’ নামক একটি ক্রীড়া সম্প্রচার সংস্থার সত্তাধিকারী। এই সংস্থার শাখা পাঁচটি উপমহাদেশে ছড়িয়ে রয়েছে।

ওএজির সন্দেহ, এই সংস্থার অধিকর্তা হয়েও বহু বেআইনি কাজে যুক্ত ছিলেন আল-খিলাইফি। কিন্তু সংস্থাটি তাদের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ নাকচ করেছে।

গত আগস্টে সংবাদ শিরোনামে বার বার উঠে আসে ফ্রেঞ্চ ক্লাব পিএসজিতে নেইমারের বিশাল অঙ্কের দল বদলের খবর।

এ নিয়ে অবশ্য কোনও তদন্তের কথা উল্লেখ করেনি ফিফা।

কৌঁসুলিরা জানিয়েছেন, আগামী চারটি বিশ্বকাপের সম্প্রচার স্বত্ব পাইয়ে দেয়ার জন্য ভাল্কে ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে অন্যায় ভাবে নানা সুবিধাও আদায় করেছেন।

নাসের আল-খিলাইফিও এই একই অপরাধে তার সঙ্গী বলে মনে করেন তদন্তকারী অফিসাররা।

২০১৮ এবং ২০২২-এর বিশ্বকাপ যথাক্রমে রাশিয়া ও কাতারে। ২০২৬ ও ২০৩০ বিশ্বকাপ কোথায়, তা এখনও ঠিক হয়নি।

ভাল্কে ফরাসি বংশোদ্ভূত দক্ষিণ আফ্রিকান নাগরিক। তাকে গত বছর ফিফার দুর্নীতি কাণ্ডের পরে সচিবের পদ থেকে সরিয়ে দেয়া হয়।

তার বিরুদ্ধে এই অভিযোগের পরে তাকে ১০ বছর ফুটবল বিশ্ব থেকে নির্বাসিত করে ফিফা। কিন্তু তাতেও তাকে দমানো যায়নি।

২০১১ সালে পিএসজিকে কাতার স্পোর্টস ইনভেস্টমেন্ট নামের একটি সংস্থা কিনে নেয়।

২২২ মিলিয়ন ইউরো (১৭০৪ কোটি টাকা) ব্যয় করে নেইমারের দল বদলের পরে পিএসজি এর মালিকের উপর সন্দেহ আরও বাড়বে ফিফার।

ফিফার বর্তমান প্রেসিডেন্ট জিয়ানি ইনফান্তিনো জানিয়েছেন, যত তাড়াতাড়ি সম্ভব এইসব দুর্নীতি কাটিয়ে উঠতে মরিয়া ফুটবল বিশ্ব। কতো দ্রুত সেটা হয়, সেটাই দেখার। ওয়েবসাইট।

About Kuy@s@News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*