টেস্ট-ওয়ানডে-টি-২০তে দ্রুততম সেঞ্চুরির মালিক কারা?

ক্রিকেট মাঠে ঝড় তোলা ব্যাটিংসম্যানদের কথা বললে, কাদের মুখ ভাসবে? শুরুতেই মনে পড়বে ক্যারিবীয় দানব ক্রিস গেইলের কথা, আছেন বুম বুম আফ্রিদি, দুর্ধর্ষ বিরাট কোহলি, মারকুটে এ বি ডি ভিলিয়ার্স, ব্রেন্ডন ম্যাককুলাম, আর সর্বশেষ ডেভিড মিলার। তবে ক্রিকেটের তিন ফরম্যাট- টেস্ট, ওয়ানডে ও টি-২০তে দ্রুততম সেঞ্চুরির তালিকায় শীর্ষে আছেন যথাক্রমে নিউজিল্যান্ডের ব্রেন্ডন ম্যাককুলাম, দক্ষিণ আফ্রিকার এ বি ডি ভিলিয়ার্স ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিস গেইল।

ব্রেন্ডন ম্যাককুলাম

 

এবার দেখুন দ্রুততম সেঞ্চুরির তালিকায় শীর্ষ পাঁচ কারা –

টেস্টের শীর্ষ ৫ সেঞ্চুরিয়ান :
ক্রিকেটার————————————-বল———-সময়
ব্রেন্ডন ম্যাককুলাম (নিউজিল্যান্ড)————৫৪———–২০১৫/১৬
ভিভ রিচার্ড (ওয়েস্ট ইন্ডজ)——————৫৬————১৯৮৫/৮৬
মিসবাহ-উল-হক (পাকিস্তান)——————৫৬————২০১৪/১৫
অ্যাডাম গিলক্রিস্ট (অস্ট্রেলিয়া)—————৫৭————-২০০৬/০৭
জ্যাক জর্জি (অস্ট্রেলিয়া)———————–৬৭————-১৯২১/২২

এ বি ডি ভিলিয়ার্স

 

ওয়ানডে’র শীর্ষ ৫ সেঞ্চুরিয়ান :
ক্রিকেটার—————————————–বল—————–সময়
এ বি ডি ভিলিয়ার্স (দক্ষিণ আফ্রিকা)————–৩১—————–২০১৫
কোরি অ্যান্ডারসন (নিউজিল্যান্ড)—————–৩৬—————–২০১৪
শহিদ আফ্রিদি (পাকিস্তান)————————-৩৭—————–১৯৯৬
মার্ক বুচার (দক্ষিণ আফ্রিকা)———————–৪৪—————–২০০৬
ব্রায়ান লারা (ওয়েস্ট ইন্ডিজ)———————-৪৫——————১৯৯৯

ক্রিস গেইল

 

টি-২০’র শীর্ষ ৫ সেঞ্চুরিয়ান :
ক্রিকেটার————————————-বল————–সময়
১. ক্রিস গেইল (ওয়েস্ট ইন্ডিজ)————–৩০————-২০১৩
২. অ্যান্ড্রু সিমোন্ড (অস্ট্রেলিয়া)—————৩৪————-২০১৪
৩. ভ্যান ডার ওয়েসথুইজেন (নামিবিয়া)——-৩৫————-২০১১/১২
৪. ডেভিড মিলার (দক্ষিণ আফ্রিকা)————৩৫————-২০১৭/১৮
৫. ইউসুফ পাঠান (ভারত)———————৩৭————–২০০৯/১০

এক ম্যাচে মিলারের আরো যত কীর্তি
ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত ফরম্যাট টুয়েন্টি টুয়েন্টিতে দ্রুত সেঞ্চুরির বিশ্বরেকর্ড গড়লেন দক্ষিণ আফ্রিকার ডেভিড মিলার। বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টি-২০ ম্যাচে মাত্র ৩৫ বলে সেঞ্চুরি করেন দ্য কিলার খ্যাত মিলার। ফলে ২০১২ সালে দক্ষিণ আফ্রিকারই রিচার্ড লেভির গড়া দ্রুততম সেঞ্চুরির রেকর্ড ভেঙে ফেলেন তিনি।

রোববার পচেফস্টুমে দ্রুত সেঞ্চুরির রেকর্ড গড়ে নয়টি ছক্কা ও সাতটি চারে ৩৬ বলে অপরাজিত থেকে ১০১ রান করেন মিলার। ফলে ৮৩ রানে জয় পায় প্রোটিয়ারা।

এর আগে ২০১২ সালে হ্যামিল্টনে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ৪৫ বলে সেঞ্চুরি করেছিলেন লেভি। ওপেনার হিসেবে খেলতে নেমে শেষ পর্যন্ত পাঁচটি চার ও ১৩টি ছক্কায় ৫১ বলে ১১৭ রান করে অপরাজিত থাকেন লেভি। ওই ম্যাচ ৮ উইকেটে জিতেছিলো প্রোটিয়ারা।

ডেভিড মিলার

 

শুধু লেভি বা মিলার নয়, টি-২০তে দ্রুততম সেঞ্চুরির তালিকায় তৃতীয় ব্যাটসম্যানটিও দক্ষিণ আফ্রিকার। তিনি হলেন অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিস। ২০১৫ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ৪৬ বলে সেঞ্চুরি হাঁকান তিনি।

এই তালিকা শীর্ষে আছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিস গেইল ও অস্ট্রেলিয়ার অ্যান্ড্রু সাইমন্ড। ৩০ বলে সেঞ্চুরি করেছেন গেইল এবং ৩৪ বলে সাইমন্ড।

মিলারের আরো রেকর্ড :
১) টি-২০তে মিডলঅর্ডারে ৪ নম্বরে সেঞ্চুরি করা ব্যাটসম্যানদের মধ্যে মিলার শীর্ষে। এর আগে সর্বোচ্চ রানের মালিক ছিলেন লোয়ার মিডলঅর্ডারে ৫ নম্বরে থাকা কোরি অ্যান্ডারসন। তার সংগ্রহ ছিল ৯৪, সেটিও ছিল বাংলাদেশের বিপক্ষে চলতি বছরে।

২) ম্যাচের ১৯তম ওভারে ৩১ রান নেন মিলার। সেই সময় বল হাতে ছিলেন সাইফুদ্দিন। তার ওভারে প্রথম পাঁচটি বলে পাঁচটি ছক্কা হাঁকান মিলার। এর সুবাদে ইভিন লিউইস ও যুবরাজ সিংয়ের রেকর্ড ছুঁয়ে ফেলেছেন তিনি। টি-২০তে এক ওভারে করা সর্বোচ্চ ছক্কার মালিক এখন থেকে তিনি।

৩) শেষ চার ওভারে ৫৯ রান সংগ্রহ করেছেন মিলার। ফলে আফগানিস্তানের মোহাম্মদ নবির রেকর্ড ভেঙে ফেলেছেন তিনি। মিলার ছয় ছক্কা ও চার বাউন্ডারিতে ১৬ বলে করেছেন ৫৯ রান। আর মোহাম্মদ নবি চলতি বছরে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ৮৯ রানের ইনিংসে ৫৯ রান করেছিলেন ৩০ বলে।

৪) মাত্র ১২ বলে শেষ ৪৯ রান করেছেন মিলার। প্রথম অর্ধশতকটি তিনি করেছেন মাত্র ২৩ বলে। এটি মিলারের টি-২০ ক্যারিয়ারের তৃতীয় সেঞ্চুরি।

About Kuy@s@News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*