পৃথিবী পরিণত হবে অগ্নিপিণ্ডে: হকিং

 

আর মাত্র ৬০০ বছরের মধ্যেই নাকি পৃথিবীর অস্তিত্ব হারিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। সম্প্রতি এক অনুষ্ঠানে এই আভাস দিয়েছেন বিজ্ঞানী স্টিফেন হকিং।

চীনের বেইজিংয়ে টেনসেন্ট ডব্লু ই শীর্ষ সম্মেলনে ভিডিও বার্তায় পৃথিবীর মানুষকে হকিং এই ভাষাতেই সতর্ক করলেন বলে সংবাদ মাধ্যম আজকালের এক প্রতিবেদনে বলা হয়।

ঠিক ৬০০ বছরে পৃথিবী এতটাই উষ্ণ হয়ে উঠবে যে আমাদের এই গ্রহ বদলে যাবে অগ্নিপিণ্ডে।

কারণ হিসেবে হকিং বলেছেন, দ্রুত হারে জন বিস্ফোরণের জন্য শক্তির ব্যবহার বাড়ছে। তার জেরে বাড়ছে উষ্ণায়নের মাত্রা। তার ফলে আগামী ২৬০০ সালের মধ্যে এই গ্রহ পুরোমাত্রায় অগ্নিপিণ্ডে পরিণত হয়ে আর বাসযোগ্য থাকবে না।

তিনি বলেন, প্রতিকার হিসেবে তাই সবাইকে পৃথিবীর বিকল্প খুঁজে বের করতে হবে, যেখানে তারা চলে যেতে পারে। সেরকম একটি নক্ষত্রের সন্ধানও দিয়েছেন ব্ল্যাক হোল থিওরির আবিষ্কারক। পৃথিবী থেকে ৪ বিলিয়ন আলোকবর্ষ দূরে রয়েছে আলফা সেঞ্চুউরি নামে একটি নক্ষত্র, যার আবহাওয়া মণ্ডল আমাদের গ্রহের মতোই।

হকিংয়ের মতে, আলফা সেঞ্চুউরি দ্রুত পৌঁছাতে প্রয়োজন অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ছোট্ট একটি বিমান যা আলোর গতিতে ছুটবে। যে বিমানে চড়ে মঙ্গলে এক ঘণ্টারও কম সময়ে, প্লুটোতে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে এবং আলফা সেঞ্চাউরিতে মাত্র ২০ বছরের মধ্যে পৌঁছনো সম্ভব।

সাইন আপ করুন এবং লুফেনিন আকর্ষনীয় বোনাস ডলার

বিনিয়োগকারীদের তার পরিকল্পনাকে বাস্তবায়িত করতে অর্থ বিনিয়োগের আহ্বান জানিয়েছেন ব্রিটিশ পদার্থবিজ্ঞানী স্টিফেন হকিং।

About Kuy@s@News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*