হুন্ডি ব্যবসা কি ইসলামের দৃষ্টিতে বৈধ?

নামাজ, রোজা, হজ, জাকাত, পরিবার, সমাজসহ জীবনঘনিষ্ঠ ইসলামবিষয়ক প্রশ্নোত্তর অনুষ্ঠান ‘আপনার জিজ্ঞাসা’। জয়নুল আবেদীন আজাদের উপস্থাপনায় এনটিভির জনপ্রিয় এ অনুষ্ঠানে দ‍র্শকের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন বিশিষ্ট আলেম ড. মো. মনজুর ইলাহী।

বিশেষ আপনার জিজ্ঞাসার ৫১৪তম পর্বে হুন্ডি ব্যবসা বৈধ কি না, সে সম্পর্কে ঢাকা থেকে টেলিফোনে জানতে চেয়েছেন এক দর্শক। অনুলিখনে ছিলেন জহুরা সুলতানা।

প্রশ্ন : হুন্ডি ব্যবসা, যারা হুন্ডির ব্যবসা করে ইসলামের দৃষ্টিতে কি এটা বৈধ?

উত্তর : হুন্ডি ব্যবসা বলতে যেটা আমরা জানি সেটা হচ্ছে, অবৈধভাবে এক দেশ থেকে অন্য দেশে অর্থ চালান দেওয়া। দেশের প্রচলিত আইন অনুযায়ী এটি অপরাধ। শুধু বাংলাদেশেই নয়, অনেক দেশেই এর ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। দেশের নাগরিকদের উচিত সেটা মেনে চলা।

কারণ, এটা এখন অশিষ্ট আচরনে পরিণত হয়েছে। এই হুন্ডির মাধ্যমে বড় বড় চোরাচালান করে তারা অবৈধভাবে এর সুযোগ নিচ্ছে। ফলে দেশের অর্থনীতিকে চাঙ্গা করার জন্য এবং নানা কল্যাণ সাধনের জন্য হুন্ডি ব্যবসাকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। একজন মুসলমানের উচিত এই নিষেধাজ্ঞা মেনে চলা।

যদিও হুন্ডি ব্যবসা সম্পর্কে হাদিসে কোনো বক্তব্য আসেনি বা এ ব্যবসা অবৈধ, সেটা উল্লেখ করা হয়নি, তথাপি এটি নিষিদ্ধ। কারণ অনেক জিনিস, যেটা সমাজের জন্য যখন অমঙ্গল হয়, তখন সমাজের সকলে মিলে বা মুসলিম প্রশাসন যদি সেটাকে নিষিদ্ধ করে, তাহলে সেটা আমাদের সবার মেনে চলা উচিত। এই দৃষ্টিকোণ থেকে আমরা বলব, যেহেতু হুন্ডি ব্যবসা অথবা হুন্ডির মাধ্যমে টাকা হস্তান্তর নিষেধ করা হয়েছে, তাই আমাদের বৈধ উৎসের দিকে যেতে হবে, বৈধভাবেই টাকা হস্তান্তর করতে হবে।

 

ভিডিওটি দেখুন এখানে

About Kuy@s@News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*