‘৪৮ আওয়ার চ্যালেঞ্জ’ নামে নতুন একটি ফেসবুক গেম অভিভাবকদের দুশ্চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

‘৪৮ আওয়ার চ্যালেঞ্জ’ নামে নতুন একটি ফেসবুক গেম অভিভাবকদের দুশ্চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। এই গেমটি খেলার জন্য শিশুরা দিনের বেশিরভাগ সময় অভিভাবকদের নজর ফাঁকি দিয়ে লাপাত্তা হয়ে যাচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

গেমটিতে অভিভাবক ও প্রিয়জনদের নজর ফাঁকি দিয়ে যতক্ষণ সম্ভব লুকিয়ে থাকার চ্যালেঞ্জ দেওয়া হয়। লুকিয়ে থাকার সময় সোশ্যাল মিডিয়ায় গেমারের খোঁজে যতো বেশিবার মেনশন করা হবে, ততোবেশি স্কোর জমা হবে গেমারের অ্যাকাউন্টে। এই গেমটির কারণে সাধারণত ১৪ বছর বয়সী কিশোররা বেশি নিখোঁজ হচ্ছে বলে তথ্য পাওয়া যায়।

সম্প্রতি আয়ারল্যান্ডে ১৪ বছর বয়সী এক কিশোর এই গেম খেলার জন্যে বাসা থেকে নিরুদ্দেশ হয়ে যায়। দুই দিন পর তাকে অন্য একটি এলাকায় খুঁজে পাওয়া যায়। পরে পুলিশ ওই শিশুটিকে উদ্ধার করে।

শিশুটির মা সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, আমি দুশ্চিন্তায় অস্থির হয়ে গিয়েছিলাম। ভেবেছিলাম আমার সন্তানের হয়তো খারাপ কিছু ঘটেছে। অথচ বাচ্চারা এই খেলাটিকে মজা হিসেবে দেখছে।
এর আগে ২০১৫ সালে ‘গেম অব ৭২’ নামক একটি গেম শিশুদের কাছে বেশ জনপ্রিয়তা অর্জন করে। ওই গেমে শিশুদেরকে দুই থেকে তিনদিন পর্যন্ত নিরুদ্দেশ থাকার চ্যালেঞ্জ দিয়ে আসছিলো। জানা যায়, ‘৪৮ আওয়ার চ্যালেঞ্জ’ ২০১৫ সালের ওই গেমটির অনুকরণে তৈরি।

এভাবে নিরুদ্দেশ হওয়ার ফলে শিশুরা নানাবিধ বিপদের সম্মুখীন হতে পারে বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা। একা পেয়ে শিশুদের অপহরণ, ধর্ষণ বা হত্যার মতো জঘন্য কাজ করতে পারে দুষ্কৃতিকারীরা। তাই শিশুদের এসব গেম খেলা উচিৎ নয় বলে মনে করেন তারা।

About Kuy@s@News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*