বেফাঁস মন্তব্যে কাঠগড়ায় বোর্ড পরিচালক

 ‘নেভার আ ডাল মোমেন্ট’, ভরা বর্ষায়ও কেমন সরগরম ক্রিকেটাঙ্গন! একদিন ক্রিকেটারের স্ত্রী এসে স্বামীর বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলার দুদিন পর জাতীয় ক্রিকেটাররা সম্মিলিতভাবে বিচার চেয়েছেন একজন বোর্ড পরিচালকের ‘অসম্মানজনক’ মন্তব্যের। পারিবারিক কলহের মতো ফ্র্যাঞ্চাইজি বনাম ক্রিকেটার বিরোধেরও আশ্বাস দিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

ঘটনার সূত্রপাত বিপিএল ফ্র্যাঞ্চাইজি বরিশাল বুলসের কর্মকর্তা এম এ আউয়াল বুলুর মন্তব্যে। পরশু বেসরকারি টিভি চ্যানেলের একটি সাক্ষাৎকারে গতবারের অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমকে এবার ছেড়ে দেওয়ার কারণ ব্যাখ্যায় তিনি যা যা বলেছেন, তা গত এক যুগে বাংলাদেশ টেস্ট অধিনায়কের গড়ে তোলা ক্রিকেটীয় সৌধ চুরমার করে দেওয়ার জন্য যথেষ্ট। সেসব মন্তব্য স্বভাবতই শেল হয়ে বিঁধেছে জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের মনেও। অগত্যা গতকাল সকালে ফিটনেস ক্যাম্প শেষে তাঁরা বসেছিলেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী ও বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সদস্য সচিব আই এইচ মল্লিকের সঙ্গে। তারই পরিপ্রেক্ষিতে আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে এম এ আউয়ালকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন মল্লিক। উত্তর মনঃপূত না হলে আর্থিক কিংবা ভিন্ন কোনো দণ্ড দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

বিসিবির তাত্ক্ষণিক এ প্রতিক্রিয়ায় আশ্বস্তই মনে হয়েছে প্র্যাকটিস শেষে ঘরে ফেরা ক্রিকেটারদের। তবে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে কার্যকর পদক্ষেপ নেওয়া হবে কি না, এ নিয়ে একেবারে সংশয়মুক্ত নন ক্রিকেটাররা। এক মৌসুম আগেও যেমন সিলেট রয়্যালসের তৎকালীন মালিকের সঙ্গে মাঠে তামিম ইকবালের বাদানুবাদের কোনো ফয়সালা হয়নি। তার চেয়েও ভয়ংকর পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল গত আসরে। বরিশাল বুলসেরই ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর নিজের ফেসবুক স্ট্যাটাসে নিজ দলের ক্রিকেটারদের বিরুদ্ধে ম্যাচ পাতানোর সন্দেহের বিষ ছড়িয়েছিলেন। তামিম বনাম সিলেটের ‘উত্তাপ’ কমাতে দায়সারা একটি ব্যবস্থা নিয়েছিল বটে, তবে গতবার বরিশাল বুলসের বিরুদ্ধে ফ্র্যাঞ্চাইজি সংশ্লিষ্টদের ওঠা পাতানো ম্যাচের অভিযোগ ঘাঁটাঘাঁটি হয়নি আনুষ্ঠানিকভাবে।

কাকতালীয়ভাবে ঘরের ভেতর থেকেই পাতানো ম্যাচের সন্দেহ ওঠা দলটির অধিনায়ক ছিলেন মুশফিকুর রহিম। বলার অপেক্ষা রাখে না, এতে বেজায় অসন্তুষ্ট হয়েছিলেন তিনি। হওয়ারই কথা। মুশফিক ম্যাচ পাতানোয় নেতৃত্ব দেবেন, তাঁকে এতটা অবিশ্বাস করার কোনো ঘটনা অদ্যাবধি ঘটেনি। ক্রিকেটের প্রতি তাঁর ভালোবাসা, একাগ্রতা নিয়েই সন্দেহের অবকাশ মেলেনি। তবু অভিযোগ ওঠে এবং এমন স্পর্শকাতর অভিযোগ তুলেও পার পেয়ে যান অভিযোগকারী।

এম এ আউয়ালও পার পেয়ে যেতেন। তবে ক্রিকেটারদের সম্ভবত বোধোদয় হয়েছে যে ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটের নামে মান-অপমানের ক্রমবর্ধমান ঘটনাবলি প্রতিরোধে এখনই একতাবদ্ধ হওয়া প্রয়োজন। মুশফিকের ব্যাপারে প্রকাশ্যে মন্তব্য করেছেন তাঁর পুরনো দলের কর্মকর্তা। বিপিএলের আনাচে-কানাচে এমন আরো অনেক ‘অপমানে’র ঘটনা কিন্তু ঘটেছে। জাতীয় দলের ব্যবস্থাপনার সঙ্গে ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটের ব্যবস্থাপনার কোনো সাযুজ্য নেই। মন চাইলেই গভীর রাতে অধিনায়ককে ঘুম থেকে ডেকে তুলে সভা করার চর্চা রয়েছে। ধমক-ধামক তো নিয়মিত ব্যাপার। একাদশ গঠনে অধিনায়ক-কোচের পরিবর্তে ফ্র্যাঞ্চাইজি মালিকের নাতির ইচ্ছাও অগ্রাধিকার পায়। আর রাতে জমকালো পার্টি ‘অপশনাল’ থাকে। তবে ক্রিকেটাররা জানেন এসব পার্টিতে উপস্থিত থাকার ফজিলত আছে!

এবং এটাই ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট। সফল ব্যবসায়ীদের কাছে দিনশেষে ফ্র্যাঞ্চাইজিও আরেকটি ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান। একজন সৌরভ গাঙ্গুলিকেও শাহরুখ খানের নীরব উপেক্ষা মুখ বুজে সইতে হয়েছে। বোর্ড যদি কারণ দর্শানোর নোটিশ সত্যিই দেয়, তাহলে এর কী জবাব দেন এম এ আউয়াল; সেটিও কম কৌতূহলোদ্দীপক নয়!

মুশফিকের অপমানে প্রতিবাদমুখর ক্রিকেটারদেরও একই অভিযোগ, ‘তিনি বিসিবি পরিচালক হয়েও কিভাবে এমন কথা বলেন?’ বিসিবির কোনো পরিচালকই কোনো ক্রিকেটারকে এমন বিষোদগার করতে পারেন না। তবে আউয়াল সাক্ষাৎকার দিয়েছেন বরিশাল বুলসের কর্মকর্তা হিসেবে। হতে পারে, প্রকাশ্যে মুশফিকের বিষোদগার করার মানসিক শক্তিটা তাঁকে জুগিয়েছে বিসিবি পরিচালক পরিচয়টিই। আউয়াল হয়তো কস্মিনকালেও ভাবেননি বোর্ড আকস্মিক ‘সংক্ষুব্ধ’ হয়ে উঠবে!

ভিডিওটি দেখতে নিচে ক্লিক করুণ

Loading...

যাক, আপাতদৃষ্টিতে বোর্ডের এমন ‘জিরো টলারেন্স’ প্রশংসনীয়। কিন্তু প্রশ্ন হলো, এ ধারা অব্যাহত থাকবে তো? বিপিএল শুরুর মৌসুমে ‘কনফ্লিক্ট অব ইন্টারেস্ট’-এর পক্ষে অনেক বাগাড়ম্বর হয়েছিল। বর্তমান পরিচালনা পর্ষদও বিপিএলে পরিচালকদের জড়িয়ে পড়ার বিরোধিতা করেছিল। কিন্তু যত দিন গেছে, ততই বিপিএলের দলে পরিচালকদের সংশ্লিষ্টতার সংখ্যা বেড়েছে। তাতে স্বার্থগত দ্বন্দ্বের সূত্র ধরে ক্ষমতার প্রদর্শনী চলেছে, চলবেও। এর দীর্ঘমেয়াদি কুফল একদিন ভোগাবে ক্রিকেটকে।

Loading...
Previous: শুটিং সেটের ভিডিও ফাঁস হওয়ায় বিব্রত প্রিয়াংকা
Next: ক্রিকেটার আরাফাত সানির বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

About Kuy@s@News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*